এই আর্টিকেলটি পড়ার পরিবর্তে ভিডিও থেকেও জেনে নিতে পারেন।

Topic-Summaryহিসাবের সুবিদ্বার্থে ধরা যাক আপনি আগামী ২০১৬ ফল সেমিস্টারে আমেরিকার ৬ টি বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করতে যাচ্ছেন। তাহলে দেখে নেওয়া যাক আমেরিকা যাওয়া পর্যন্ত আপনার কতো খরচ হতে পারে-

খরচের হালচাল:

আগাম খরচ:

জিআরই রেজিস্ট্রেশন ফি + চারটি ইউনিভার্সিটিতে স্কোর পাঠানো         ১৫,৬০০ টাকা।

দুইিট ইউনিভার্সিটিতে স্কোর পাঠানো (২,০০০x২)                                    ৪,০০০ টাকা।

টোফেল রেজিস্ট্রেশন ফি + চারটি ইউনিভার্সিটিতে স্কোর পাঠানো          ১৩,৬০০ টাকা।

দুইটি ইউনিভার্সিটিতে স্কোর পাঠানো (১,৪৪০x২)                                   ২,৮৮০ টাকা।

___________________________________________________________

মোট আগাম খরচ                                                                             ৩৬,০৮০ টাকা।

আবেদন খরচ:

ইউনিভার্সিটির আবেদন ফি (৪,০০০x৬)                                             ২৪,০০০ টাকা।

ট্রান্সক্রিপট ইস্যু করা (৫০০x৬)                                                          ৩,০০০ টাকা।

ট্রান্সক্রিপ্ট বা ডকুমেন্ট পাঠানোর খরচ (২,০০০x৬)                            ১২,০০০ টাকা।

___________________________________________________________

মোট আবেদন খরচ                                                                   ৩৯,০০০ টাকা।

মোট আগাম খরচ + মোট আবেদন খরচ   

                                (৩৬,০৮০+৩৯,০০০)                                    ৭৫,০৮০ টাকা।   

ভিসা প্রসেসিং খরচ:

 

অ্যাম্বাসি ফি                                                                                   ১৪,০০০ টাকা।

সেভিস ফি                                                                                     ১৬,০০০ টাকা।

___________________________________________________________

ভিসা প্রসেসিং বাবদ মোট খরচ                                             ৩০,০০০ টাকা।

ভিসা পরবর্তী খরচ:

ব্যক্তিগত শপিং                                                                              ১৫,০০০ টাকা।

প্লেন ভাড়া (কম বেশি)                                                               ১,০০,০০০ টাকা।

___________________________________________________________

ভিসা পরবর্তী মোট খরচ                                                    ১,১৫,০০০ টাকা।

মোট ভিসা প্রসেসিং+মোট ভিসা পরবর্তী খরচ

          (৩০,০০০+১,১৫,০০০)                                          ১,৪৫,০০০ টাকা।

সর্বমোট খরচ

       (৭৫,০৮০+১,৪৫,০০০)                                             ২,২০,০৮০ টাকা।

আয়ের হিসাব:

আয়:

একজন রিসার্চ অ্যাসিস্টেন্ট এর বছরে পারিশ্রমিক গড়ে                       ২০,০০০ ডলার।

ব্যায়:

ইনকাম ট্যাক্স বাবদ কেটে নিবে(১৫%)                                               ৩,০০০ ডলার।

থাকা খাওয়া বাবদ খরচ গড়ে (৭০০ডলার x১২)                                ১১,২৮৪ ডলার।

_____________________________________________________________

মোট ব্যায়                                                                                ১৪,২৮৪ ডলার।

বছরে প্রকৃত আয় (২০,০০০-১৪,২৮৪) ডলার                                ৫,৭১৬ ডলার।

টাকার হিসাবে, (৫,৭১৬x৮০)                                                  ৪,৫৭,২৮০ টাকা।

প্রতি মাসে (৪,৫৭,২৮০/১২)                                                      ৩৮,১০৬ টাকা।

সুতরাং, থাকা খাওয়া বাদ দিয়ে প্রতি মাসে আপনি কম বেশি ৪০ হাজার টাকা বাঁচাতে পারবেন।

সে হিসেবে মাত্র সাড়ে ৫ মাসে আপনার সমস্ত খরচের টাকা উঠে আসবে।

 

Comments

comments

Comments

  1. রিয়াদ

    আমি সায়েন্স এর ছাত্র নিজের আয় দিয়ে কি পড়া লেখার খরচ বহন করা যাবে?

    1. আমিনুর রহমান

      এটা নির্ভর করে। তবে নিজের টিউশনের/আয়ের টাকায় খরচ চালানোর উহারন আশেপাশে অনেক পাবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>