জিআরই এবং টোফেল: হায়ারস্টাডির প্রস্তুতি হোক স্ট্র্যাটিজিক্যালি (পার্ট- ২) পড়তে ক্লিক করুন এখানে

অনেকে কনফিউশনে থাকে নিজের দুর্বলতা কোথায় সেটা নিয়ে। অনেকে লজ্জাতেও থাকে, হতাশাতেও পড়ে যায়। তবে এগুলো দূর করতে হবে। সবার আগে বার করতে হবে নিজের দুর্বলতা কোথায় সেটা। একটা ফুল লেংথ টেস্ট দিয়ে দিন কোন প্রিপারেশন ছাড়াই। বেরিয়ে আসবে আপনি কী কী টপিক পারেন না। সেগুলোতে একটু বেশী সময় দিন। ফুল লেংথ টেস্ট যত বেশী দেবেন, ততই নিজের অবস্থাটা পরিষ্কার হবে। অবশ্যই পরীক্ষার আগে আগে ফুল লেংথ মডেল টেস্ট দিয়ে নিজেকে ধাতস্থ করে নেবেন।

কোন অংশে কীভাবে পড়লে ভালো করতে পারবেন তা তো বললাম, কী কী বই সলভ করবেন সেটাও এবার বলে দিই। কেন কোনটা পড়বেন সেটাও বলছি। একটা দুটো বই পড়া মানে হাতে গোণা কয়েকটা প্রবলেম সলভ করা। আর বেশী বই পড়া মানে বেশী প্র্যাকটিস করা। বুঝতেই পারছেন, যত বই সলভ করা যায় ততই ভালো। কাগজের বই বাদ দিয়ে পিডিএফ পড়ার ট্রাই করবেন, কারণ সাড়ে চার ঘণ্টা একটানা কম্পিউটার স্ক্রিনের দিকে তাকিয়ে পরীক্ষা দেয়া একটা অভ্যাসের ব্যাপার। এছাড়াও যা পড়বেন ইংরেজি পড়বেন, ব্যাখ্যাও ইংরেজিতে পড়বেন – “আসুন বাংলায় জিআরই পড়ি” জাতীয় বইগুলোর ধারেকাছেও যাবেন না। অনেক সময় মনে হয় বাংলায় ব্যাখ্যা পড়লে বুঝি, ইংরেজিতে বুঝি না তাই বাংলাতেই পড়া উচিৎ – কিন্তু এটা ধীরে ধীরে আসলে ক্ষতিই করে। দ্রুত ইংরেজি পড়ার স্কিল বাড়ানোর উপায় হল ইংরেজিতে চিন্তা করতে শেখা। আমরা যেটা করি তা হল বাংলায় চিন্তা করি, তারপর ইংরেজিতে মনে মনে অনুবাদ করি, তারপর সেটা বলি। এতে সময় লাগে অনেক। চেষ্টা করুন পুরো প্রসেস ইংরেজিতে সারতে। চেষ্টা করতে করতেই হবে।

যখন পরীক্ষা দিতে বসবেন, তখন চেষ্টা করবেন পুরো মনোযোগ প্রশ্ন সলভ করার দিকে রাখতে, স্কোরের দিকে নয়। কোনটা এক্সপেরিমেন্টাল সেকশন সেটা জানার কোন উপায় নেই, কাজেই এসব নিয়েও ভাবার দরকার নেই।

Reading Materials:
  1. ETS Official Guide: প্রিপারেশন শুরুর আগেই এই বইটা পুরোপুরি আগে সলভ করে নেবেন। কারণ এটাই রিয়েল জিআরই এর প্রশ্নগুলো কেমন সে সম্পর্কে সবচেয়ে ভালো ধারণা দেবে।
  2. Barron’s New GRE (19th Ed.): বেশ ভালো বই। প্র্যাকটিস করতে পারবেন, এক্সপ্ল্যানেশনও পাবেন।
  3. Princeton – 1007 GRE Practice Questions – ড্রিল আছে ১০০৭ টি। প্রশ্ন সলভ করার জন্য।
  4. Princeton – Cracking the GRE (2nd Ed.) – এখানেও ব্যাখ্যাসহ প্র্যাকটিস করা যাবে।
  5. Kaplan – New GRE Premier (2011-2012) – খুব সুবিধের নয়, কিন্তু সলভ করতে পারেন।
  6. Aristotle Prep – Verbal Grail – শুধু ভার্বালের জন্য। একটু কঠিন লাগতে পারে, আবার একটু সহজও লাগতে পারে! সোজা কথায় পুরো ভার্বাল সেকশন কিছুদিন প্র্যাকটিস করতে পারবেন।
  7. ETS Big Book (Old) – পুরনো ফরম্যাটের বলে অনেক কিছু মিলবে না। কিন্তু টেক্সট কমপ্লেশন আর রিডিং কম্প্রিহেনশনের জন্য পড়তে পারেন। এত বড় প্যাসেজ আজকাল আর আসে না, কিন্তু বড় প্যাসেজ হ্যান্ডেল করা শিখলে পড়ার স্পিড বাড়বে বিধায় রিয়েল জিআরইতে বড় সুবিধে পাবেন।
  8. Magoosh GRE E-book (About 100 pages only!) – ছোট বই, কিন্তু কনসেপ্ট ভালো বুঝতে পারবেন।
  9. ETS – Quantitative Reasoning Part 1 (Practice Questions) – প্র্যাকটিস। অল্প কয়েকটা প্রশ্ন, কিন্তু ভালো মানের।
  10. ETS – Verbal Reasoning Part 1 (Practice Questions) – প্র্যাকটিস। অল্প কয়েকটা প্রশ্ন, কিন্তু ভালো মানের।
  11. Manhattan 5 lb book of GRE Practice Problems – ড্রিল। জিআরই এর সব ধরণের প্রশ্নের প্র্যাকটিসের জন্য।
Analytical Writing:
  1. Arco – Answers to the real essay questions – জিআরই পুলে যত ইস্যু আর আর্গুমেন্ট আছে সবগুলোর স্যাম্পল আন্সার। সবগুলো খুব মানসম্পন্ন রেসপন্স নয়, বরং কিছু আছে খুবই ছোট সাইজের, কিন্তু কী করে লিখতে হয় সে সম্পর্কে ধারণা পাবেন।
  2. GRE Writing of Kaplan – ওপরের বইটাই।
  3. Washington Post (Online Newspaper) – mostly articles on political issues –পড়তে পড়তে শিখতে পারবেন ফরমালি কী করে একটা টপিক ডিসকাস করতে হয়, কী করে জটিলভাবে লিখতে হয়। পারলে খবরের পাশাপাশি খবরের অ্যানালাইসিস, কমেন্ট এগুলো পড়ে বোঝার চেষ্টা করুন।
Vocabulary:
  1. Barron’s 3500 words – ৩৩৩ হাই ফ্রিকুয়েন্সি ওয়ার্ডস, ১০০০ ওয়ার্ডস ইত্যাদি নানান ওয়ার্ড লিস্ট আছে। তবে ৩৫০০ ওয়ার্ড লিস্ট ভালমতো পড়লে কাজ চালানোর মত সব কাভার হয়ে যাবে। সময় নিয়ে পড়ুন, একদিনে অল্প অল্প করে। অনেকের অভিযোগ – অনেক পড়ি, কিন্তু ভোকাবুলারি মনে থাকে না। অনেকে ওয়ার্ড লিস্ট মুখস্ত করতে গিয়ে A তেই আটকে থাকে, B তে আর যেতে পারে না। মনে থাকবে, যদি আপনি ব্যবহার করেন। দুয়েকটা শব্দ কায়দামত জায়গায় ব্যবহার করে ফেলুন। বাচ্চাদের মত করে শিখলেই ভোকাবুলারি শেখা যাবে, অর্থাৎ সবগুলো ইন্দ্রিয় এখানে এনগেইজ করতে হবে। শব্দটা জোরে জোরে বলুন, কানে শুনুন, কাগজে লিখুন, কোন একটা বাক্যে প্রয়োগ করুন – বলায় এবং লেখায়। ঝালাই করুন পুরনো শব্দগুলো। দু’মাস পর অনেকগুলো শব্দই আপনার “মুখস্ত” না হলেও আপনি এগুলোর সাথে“ফ্যামিলিয়ার” হয়ে যাবেন – এটাই দরকার। মনে থাকছে কি থাকছে না এটা নিয়ে ভয় পাবার দরকার নেই, পড়ে যান। নিজের জন্য ভালো উপায়টা খুঁজে বার করুন।
  2. Painless GRE (Android App) – গেইম খেলার মত করে প্র্যাকটিস করতে পারবেন। বেশ কয়েকটা শব্দ ঝালাই করতে পারবেন পাঁচ-দশ মিনিটে, এবং কোন পেইন লাগবে না বিধায় এই নাম! দীর্ঘমেয়াদে প্র্যাকটিস করলে বেশ ভালো ফল দেয়।

আরও অনেক বই আছে পড়ার মত, আগ্রহ হলে নাড়াচাড়া করতে দোষ নেই। যেমন –গ্রুবার,  LSAT for Dummies, কাপলান ম্যাথ ওয়ার্কবুক, নোভা ম্যাথ ইত্যাদি। কনসেপ্ট ক্লিয়ার করার জন্য অনেকে Manhattan 1-8 বইগুলো পড়েন, অনেকে Magoosh Accountকিনে প্র্যাকটিস করেন, অনেকে Manhattan এর মক টেস্ট গুলো দেন। যত কিছু কাভার করা যায় ততই ভালো।

এবার আসি TOEFL প্রসঙ্গে।

TOEFL:

জিআরই অ্যাকাডেমিক টেস্ট। কিন্তু টোফেল ল্যাঙ্গুয়েজ টেস্ট। ইন্টারনেট বেইজড এ টেস্টে আপনার চারটি স্কিল পরীক্ষা করা হবে – Reading, Listening, Speaking and Writing.

জিআরই এর পাশাপাশি যদি টোফেল একটু একটু করে পড়েন, আর স্পিকিং-এর জন্য একটু কেয়ারফুলি প্রিপারেশন নেন, তাহলে জিআরই দেয়ার কয়েকদিন পরই টোফেল দিয়ে দিতে পারবেন।

সাধারণত যারা জিআরই দিয়েছে তাদের টোফেলের রিডিং এবং রাইটিং অংশে কোন সমস্যা হয় না। লিসনিং এর জন্য ইংলিশ মুভি, টিভি সিরিজ ইত্যাদি দেখা “খানিকটা” কাজে দেয়। সমস্যা হল স্পিকিঙয়ে, কারণ আমাদের অনেকেরই দু’লাইন কোন বিষয়ের ওপর বলতে গেলে হোঁচট খেতে হয়, এবং আণ্ডারগ্র্যাডে ইংলিশ প্রেজেন্টেশনের সংখ্যা হাতেগোণা, দায়সারা ধরণের – এবং সেগুলোতেও আমাদের পারফর্মেন্স অত্যন্ত খারাপ। সাধারণত আমরা বাংলায় চিন্তা করি, সেটাকে ইংরেজিতে ট্রান্সলেইট করি, তারপর একটা ভুলভাল উচ্চারণে প্রেজেন্ট করি বলে আমাদের ইংরেজি বলতে খুব সমস্যা হয়। স্পিকিং সেকশনের সময়ও কম, মাত্র বিশ মিনিটে ছ’টা অ্যান্সার করতে হয়, কাজেই কোন ভুল করার বা সময় নিয়ে কাজ করার সুযোগ নেই। এটির প্রিপারেশন একটু বেশী গুরুত্ব দিয়ে নিতে হবে।

সেকশনগুলো নিয়ে আলাদা করে আলোচনা করছি।

জিআরই এবং টোফেল: হায়ারস্টাডির প্রস্তুতি হোক স্ট্র্যাটিজিক্যালি (পার্ট- ৪) পড়তে ক্লিক করুন এখানে

 

- ইসহাক খান, প্রাক্তন গ্রেক ফ্যাকাল্টি


নিচের লিংক থেকে ইসহাক খানের লেখা অন্যান্য আর্টিকেলগুলো পড়তে পারেন-

 স্টুডেন্টদের সাধারণ দুর্বলতা – পার্ট ১ – Vocabulary
 স্টুডেন্টদের সাধারণ দুর্বলতা – পার্ট ২ – Analytical Writing
 স্টুডেন্টদের সাধারণ দুর্বলতা – পার্ট ৩ – Reading Comprehension
 স্টুডেন্টদের সাধারণ দুর্বলতা – পার্ট ৪ – Speaking (TOEFL)
 Originality of writing: এসওপি, এলওআর, ইমেইলিং প্রফেসরস, সিভি ও রেজুমে (১ম খণ্ড)
 Originality of writing: এসওপি, এলওআর, ইমেইলিং প্রফেসরস, সিভি ও রেজুমে (২য় খণ্ড)
 Customized Routine: নিয়মিত ফলো করা (১ম খণ্ড)
 Customized Routine: নিয়মিত ফলো করা (২য় খণ্ড)
 আমার জন্য সঠিক রাস্তা কোনটা: বিদেশ, জিআরই, স্বদেশ, বিসিএস, চাকরি?
 রেকমেন্ডেশন বিড়ম্বনা!
 Research: রিসার্চ বা গবেষণা
 ইউএস অ্যাম্বেসির ভেতরের পরিবেশ এবং স্টেপগুলো
 ইংরেজিতে দক্ষতা এবং কিছু স্ট্র্যাটিজি
 Teaching: শেখা ও শেখানো, দেয়া ও নেয়া
 ইউএস ভিসা পাওয়া না পাওয়া এবং হায়ার স্টাডির কিছু পয়েন্ট
 জিআরই এবং টোফেল: হায়ারস্টাডির প্রস্তুতি হোক স্ট্র্যাটিজিক্যালি (পার্ট- ১)
 জিআরই এবং টোফেল: হায়ারস্টাডির প্রস্তুতি হোক স্ট্র্যাটিজিক্যালি (পার্ট- ২)
 জিআরই এবং টোফেল: হায়ারস্টাডির প্রস্তুতি হোক স্ট্র্যাটিজিক্যালি (পার্ট- ৩)
 জিআরই এবং টোফেল: হায়ারস্টাডির প্রস্তুতি হোক স্ট্র্যাটিজিক্যালি (পার্ট- ৪)
 আমার অভিজ্ঞতা: জিআরই প্রস্তুতি এবং পরীক্ষা
 আমার অভিজ্ঞতা: টোফেল প্রস্তুতি এবং পরীক্ষা
 আমেরিকায় উচ্চশিক্ষা এবং দরকারি কৌশল

Comments

comments