আমেরিকান ভার্সিটিগুলোতে অ্যাপ্লাই করলে তারা আপনার জিআরই ও জিপিএ’র সাহায্যে আপনি কতটা উপযোগী প্রার্থী সে সম্পর্কে কিছুটা ধারণা করতে পারবে। এর পাশাপাশি আপনার বিভিন্ন গুণাবলী ও পটেনশিয়াল সম্পর্কে জানেন এরকম কিছু ব্যক্তির কাছ থেকেও সুপারিশপত্র দরকার। এই ব্যক্তিগুলো সাধারণত আপনার আন্ডারগ্র্যজুয়েট প্রোগ্রামের শিক্ষক বা কিছুক্ষেত্রে আপনার চাকুরীক্ষেত্রে উর্ধ্বতন কর্মকর্তা হয়ে থাকেন।

আমেরিকায় এমবিএ করতে গেলে চাকুরির অভিজ্ঞতা অনেক সময় কাজে লাগে। সেসব ক্ষেত্রে যার অধীনে কাজ করেছেন তার রেকম. লেটার সংগ্রহ করতে হবে।

Comments

comments