IELTS (2)কিছুদিন হলো IELTS পরীক্ষা দিয়েছেন। তবে হায়ারস্টাডির জন্য ইউকে, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, আমেরিকা কিংবা বিশ্বের অন্য যেকোন দেশে আবেদন করবেন বলে ভাবছেন। কিংবা আবেদন করেছেন তবে সবকিছু প্রসেস হতে সময় লাগবে বেশ কিছু দিন।

[alert style=”info”]

এই উভয় পরিস্থিতেই হায়ারস্টাডি কিংবা স্টাডি অ্যাব্রড অ্যাসপিরান্টদের মনে প্রশ্ন জাগে আমার আবেদন করতে দেরি হলে কিংবা সকল প্রসেস সম্পন্ন হতে সময় লাগলে কি আমার আয়েল্টস স্কোরের মেয়ার থাকবে? নাকি পুনরায় আবার আমার আয়েল্টস পরীক্ষা দিতে হবে?[/alert]

IELTS টেস্টের স্কোরের মেয়াদ থাকে দুই বছর অর্থাৎ ২৪ মাস পর্যন্ত। অর্থাৎ আপনার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আবেদন থেকে শুরু করে সকল ধাপ সম্পন্ন করে বিদেশে পারি জমাতে হবে এই সময়ের মধ্যেই।

[alert style=”success”]

তবে পরিস্থিতি যদি এমন হয়, আপনার সকল প্রসেস সম্পন্ন করতে আরেকটু বেশি সময় লেগে যায়? তখন কি করবেন? নতুন করে আবার পরীক্ষা দেবেন নাকি অন্য কোন উপায় আছে?[/alert]

হ্যা, উপায় আছে। উপায়টি হলো- শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সকল প্রসেস চলছে এবং তারা আপনাকে সিলেক্ট করেছে। তবে ফুরিয়ে আসছে আয়েল্টস স্কোরের মেয়াদ। এখন আপনার কাজ হবে সেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে আপনার এই বিষয়টি অবহীত করে রাখা।

তারা আপনার স্কোরের মেয়াদের ব্যাপারে অবগত থাকলে অনেক সময়ই আপনাকে পরীক্ষা দিতে বলে না। এক্ষেত্রে তাদেরকে সন্তুষ্ট করার মতো জানিয়ে রাখলে অর্থাৎ কনভেন্সিং কারন জানিয়ে রাখলে তারা আপনার ব্যাপারটি বিবেচনা করবে।

আর যদি কর্তৃপক্ষ আপনার দেয়া তথ্যে কনভেন্স না হয় কিংবা প্রয়োজন মনে করলে আপনাকে পুনরায় আয়েল্টস টেস্টে অংশগ্রহণ করতে হবে।

আয়েল্টস টেস্ট সম্পর্কে জানতে ক্লিক করুন এই [button size=”slarge,small,mini” color=”green” url=”http://hsa.grecbd.com/basic-intro-of-ielts/” target= “_blank”]লিংক[/button]। আয়েল্টস টেস্টের পরীক্ষা পদ্ধতি সম্পর্কে জানতে এই [button size=”large,small,mini” color=”red” url=”http://hsa.grecbd.com/ielts-test-format/” target= “_blank”]আর্টিকেলটি[/button]  দেখতে পারেন।