গ্রেকের ফ্রি ফান্ডামেন্টাল ইংলিশ কোর্স

[alert style=”danger”]১. গ্রেকের ফান্ডামেন্টাল ইংলিশ কোর্স কি?[/alert] ফান্ডামেন্টাল ইংলিশ কোর্স হচ্ছে গ্রেক আয়োজিত বেসিক ইংলিস গ্রামারের একটি বিনামূল্যের কোর্স সেবা। বিভিন্ন সময়ে বাংলাদেশের শিক্ষার্থীদের জন্য নেয়া গ্রেকের হিতৈষী উদ্যোগের মধ্যে এই কোর্স একটি। দশ বছর এসএসসি, এরপর এইচএসসি শেষে অনার্স শেষ করলেও অনেক গ্র্যাজুয়েট শিক্ষার্থীরই ইংরেজি গ্রামারে দুর্বলতা থেকে যায়। অনার্স পড়ুয়া বা গ্র্যাজুয়েট শিক্ষার্থীর জন্য অনেক […]

Read More

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জিআরই প্রস্তুতি

[alert style=”danger”]জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশ্ন সাধারণত বাংলায় হয়ে থাকে। যার কারনে বইয়ের অধিকাংশ টার্ম এবং বিভিন্ন বিষয়ের নামগুলো বাংলায় শেখা হয়। ফলে ইংরেজি টার্মগুলোর সাথে তারা থাকে অপরিচিত। জিআরই পরীক্ষার প্রস্তুতি পর্বে তাই একজন স্টুডেন্ট প্রথম ধাক্কার সম্মুখীণ হোন এখানেই। জিআরই পরীক্ষা এবং পরীক্ষার সিলেবাস সম্পর্কে মনে ভয় বাসা বাধে। ফলশ্রুতিতে জিআরই পরীক্ষার হাল ছেড়ে দেন অধিকাংশ শিক্ষার্থী।[/alert] হঠাৎ […]

Read More

জিআরই বনাম জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

[alert style=”danger”]আমি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী! এই ভেবে দেশের বাইরে উচ্চ শিক্ষা সম্ভব নয় বলে স্বপ্ন দেখার পূর্বেই নিজেকে গুটিয়ে রাখেন শিক্ষার্থীরা। বাংলাদেশের অন্যান্য সরকারি এবং বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মতোই জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্যও রয়েছে দেশের বাইরে ফান্ড/ স্কলারশিপ নিয়ে উচ্চ শিক্ষা অর্জনের সুযোগ।[/alert] জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের দেশের বাইরে উচ্চ শিক্ষা এবং জিআরই এক্সাম নিয়ে প্রায় সময়ে নানা কনফিউশন ও সম্ভব […]

Read More

গ্রেক সেমিনার এবং সাধারণ জিজ্ঞাসা

[alert style=”info”] সাধারণত গ্রেক নিজস্ব প্রাঙ্গনে, রাজধানীর বিভিন্ন মিলনায়তন (অডিটোরিয়াম) এবং দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে স্টাডি অ্যাব্রড এবং হায়ারস্টাডি রিলেটেড টপিকের উপরে প্রশিক্ষণ এবং অনুপ্রেরণামূলক নিয়মিত সেমিনারের আয়োজন করে থাকে। গ্রেকের আয়োজিত সেমিনারে আগ্রহী স্ট্যাডি অ্যাব্রড অ্যাসপিরান্টদের অনেক সময়ই নানান প্রশ্ন থাকে। সেই প্রশ্নগুলোর মধ্য থেকে কিছু কমন পশ্নের উত্তরগুলো নিচে উল্লেখ করা হলো- [/alert] [alert style=”danger”]১. গ্রেকের আয়োজিত […]

Read More

জিআরই পরীক্ষা বনাম টাইপিং স্পিড

[alert style=”danger”]আমার টাইপিং স্পিড ভালো না/ আমার টাইপের অভিজ্ঞতা নেই- জিআরই পরীক্ষায় আমি কিভাবে টাইপ করবো/ আমার টাইপিং স্পিড কিভাবে বাড়াবো? [/alert] বর্তমান সময়ে প্রচলিত মিথের মধ্যে অন্যতম। জিআরই পরীক্ষার জন্য টাইপ শিখবেন কি শিখবেন না-তা নিয়ে চিন্তা করার আগে নিচের বিষয়গুলো জেনে নেওয়া যাক। [alert style=”danger”]সহজ হিসেবে:[/alert] জিআরই পরীক্ষায় সাধারণত দুই ধরণের রাইটিং থাকে। […]

Read More

যেভাবে পাঠাবেন টোফেল ASR

অনলাইনে বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদনের জন্য জিআরই স্কোরের সাথে টোফেল স্কোর পাঠানো জরুরী। নতুনদের জন্য আগে থেকে জানা না থাকায় অনেক সমস্যায় পড়তে হয। এ ধরণের সমস্যা যাতে না হয় সে কারনে নিচের পদ্ধতি অনুসরণ করতে পারেন। [alert style=”danger”]টোফেল Additional Score Report (ASR): [/alert] ধাপ:১ আপনার মাইটোফেল অ্যাকাউন্টে লগইন করতে হবে। My Tests অপশন থেকে Order Score Reports […]

Read More

যেভাবে পাঠাবেন জিআরই ASR

বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদনের সময় Additional Score Report (ASR) পাঠানো জরুরি। কিন্তু সঠিক তথ্য জানা না থাকায় অনেকেই ভুলত্রুটি করে ফেলেন। এ ধরণের সমস্যা সমাধানের উদ্দেশ্যে সঠিকভাবে কিভাবে জিআরই ASR পাঠাবেন বা অর্ডার করবেন তা নিচে সচিত্র বর্ণনাসহ উপস্থাপন করা হলো: ধাপ:১ শুরুতেই আপনার ইউজার আইডি এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে আপনার মাইজিআরই অ্যাকাউন্টে লগইন করতে হবে। Scores সেকশন থেকে Send […]

Read More

আমেরিকান বিশ্ববিদ্যালয়ে মাস্টার্স আর পিএইচডি করতে কতোদিন লাগবে?

অধিকাংশ আমেরিকান বিশ্ববিদ্যালয়ে মাস্টার্স প্রোগ্রাম সাধারণত দুই বছরের। অন্যদিকে পিএইচডির জন্য কত সময় লাগবে তা নির্ধারিত করা একটু কঠিন। কেননা এটা নির্ভর করে প্রজেক্টের বিভিন্ন গবেষণার সফলতার উপর। তবে সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় প্রফেসরের হাতে গবেষণা কাজ চালানোর মতো কি পরিমাণ ফান্ড আছে তার উপর। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই ৪ থেকে ৫ বছরের মতো সময় লাগে। অনেক ক্ষেত্রে ৭ বছর পর্যন্ত লাগতে পারে।  

Read More

কতোগুলো ট্রান্সক্রিপ্ট প্রস্তুত রাখা উচিত?

সাধারণত ভর্তির জন্য প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয় দুইটি করে ট্রান্সক্রিপট চেয়ে থাকে (একটি অ্যাডমিশন অফিস এবং অন্যটি ডিপার্টমেন্ট এর কাজে) । অন্যদিকে ভিসা ইন্টারভিউ এর সময় অ্যাম্বসিতে এক কপি প্রদর্শন করা লাগে। সে হিসাবে আপনি যদি চারটি বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করেত চান তাহলে আপনার নূন্যতম ১০টি ট্রান্সক্রিপ্ট হাতে রাখতে হবে। বলে রাখা ভালো, অনেকের শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান এতগুলো অরজিনাল কপি […]

Read More

বিশ্ববিদ্যালয় ট্রান্সক্রিপ্ট কি? সার্টিফিকেট এবং মার্কশীটের সাথে পার্থক্য কি?

ট্রান্সক্রিপট এক ধরণের ডকুমেন্ট যা বিশ্ববিদ্যালয় নিবন্ধন অফিস অথবা ডিপার্টমেন্ট অফিস প্রদান করে থাকে। এতে অনার্স অথবা মাস্টার্স ডিগ্রীতে আপনার প্রাপ্ত গ্রেড এবং ক্রেডিট আওয়ার উল্লেখ থাকে। সাধারণত আপনার বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা জীবনে আপনি কতটা গ্রেড অর্জন করেছিলেন সে সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা প্রদান করবে। অন্যদিকে সার্টিফিকেট- আপনি এই সালের এই ডিপার্টমেন্ট থেকে বিএসসি ডিগ্রী অথবা মাস্টার্স […]

Read More

স্কলারশীপ কতো ধরণের এবং কি কি?

আমেরিকান বিশ্ববিদ্যালয় সাধারণত তিন ধরণের স্কলারশীপ বা ফান্ডিং দিয়ে থাকে। শিক্ষক সহকারি (TA): সোজ কথা শিক্ষকের ডান হাত হয়ে কাজ করতে হয়। শিক্ষকের ক্লাস নেওয়ার সময় সাহায্য করা, পরীক্ষার প্রশ্ন প্রস্তুত করা, উত্তরপত্র মার্কিং করা, ক্লাসের ছাত্রদের কোন সমস্যা হলে সেটা সমাধান করে দেওয়া। গবেষণা সহকারি (RA): প্রফেসরকে গবেষণাগারে বিভিন্ন কাজে সাহায্য করার বিনিময়ে ফান্ড […]

Read More

ভর্তি হওয়ার পরই কি স্কলারশীপ পাওয়া যায়?

না। অনেক বিশ্ববিদ্যালয় আছে যেখান খুব কম সংখ্যা শিক্ষার্থীকে ফান্ডিং বা স্কলারশীপ প্রস্তাব করা হয। বাকি সব শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন শর্তে নিজস্ব ফান্ডিং এ ভর্তি হওয়ার পরামর্শ দেয়। অন্যদিকে অনেক বিশ্ববিদ্যালয় আছে যেখানে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তখনই আপনার ভর্তি নিশ্চিত করবে যখন তাদের হাতে স্টুডেন্টকে মাসিক ভিত্তিতে দেয়ার মতো পর্যাপ্ত পরিমাণ ফান্ড থাকবে। সুতরাং এই প্রশ্নের উত্তর […]

Read More

ফান্ডেড অ্যাডমিশনের জন্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয়াবলি

আমেরিকান বিশ্ববিদ্যালয়ে অ্যাডমিশন এবং ফান্ডের নাগাল পাওয়ার জন্য সঠিক সময়ে আবেদন করা জরুরি। আমাদের দেশের মতো আমেরিকানদের অ্যাডমিশনের সময়কাল বা মৌসুম থাকে। যেহেতু আবেদনের সাথে টাকা পয়সার বিষয়গুলো সম্পর্কিত সে কারনে বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদনের আগে জরুরি দিকগুলো জেনে নেওয়া উত্তম। এতে সময় এবং টাকা পয়সা উভয়ই সাশ্রয় করা সম্ভব। [alert style=”danger”]সিজিপএ এবং জিআরই:[/alert] অ্যাডমিশনের জন্য সবার […]

Read More

SSC এবং HSC ক্রিডেনশিয়াল কতটা দরকারি?

যদি আমেরিকার কথা বলি তাহলে SSC এবং HSC ক্রিডেনশিয়ালের কোন ব্যবহার নেই বললেই চলে। যেমন- এক ভদ্রলোক অর্নাস দ্বিতীয় বর্ষে পড়তো। একদিন ডিভি পেয়ে ভদ্রলোক আমেরিকা চলে যায়। কিন্তু এসএসসি ও এইচএসসি সার্টিফিকেট থাকা সত্ত্বেও বিপত্তি বাধেঁ। ইউএস কর্তৃপক্ষ তাকে পরামর্শ দেয় বাংলাদেশের এডুকেশন বোর্ড থেকে সরাসরি ট্রান্সক্রিপট পাঠানোর জন্য।  অ্যাম্বেসীর ভিসা ইন্টাভিউ এর মুখোমুখি হওয়ার জন্য এসব […]

Read More

বিশ্ববিদ্যালয়ে কি কি ধরণের ডকুমেন্ট পাঠাতে হবে?

সাধারণত ভর্তি কার্যক্রমের অংশ হিসেবে অনেক সময় বিশ্ববিদ্যালয়ে ডকুমেন্ট পাঠানোর দরকার পড়ে। অধিকাংশই ক্ষেত্রেই নিচের ডকুমেন্টগুলো দরকার হয়: আপনার বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্সের ট্রান্সক্রিপ্ট (অরজিনাল কপি) আপনার বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্স্টাসের ট্রান্সক্রিপ্ট (অরজিনাল কপি) আপনার স্বাক্ষরযুক্ত এসওপি (SOP)। অবশ্যই সব পেইজে আপনার স্বাক্ষর থাকতে হবে। এওআর: তিনজন টিচারের কাছ থেকে এই এলওআর নিতে হবে। চিঠিগুলো অবশ্যই অফিসিয়াল খামে হতে […]

Read More

কিছু বিশ্ববিদ্যালয় আছে যারা সরাসরি বাংলাদেশি ক্রেডিন্টশিয়াল গ্রহণ করেন না, সে ক্ষেত্রে আমার কি করণীয়?

আমেরিকান কিছু বিশ্ববিদ্যালয় আছে যারা আমেরিকার বাইরের কোন ক্রেডিন্টশিয়াল (যেমন-সার্টিফিকেট) গ্রহণ করে না। সেক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই আমেরিকা স্বীকৃতি কোন প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে দরকারি সব ক্রেডিন্টশিয়াল পাঠাতে হবে। এসব প্রতিষ্ঠান সাধারণত আপনার প্রাপ্ত সিজিপিত্র/গ্রেড কে আমেরিকান স্ট্যান্ডার্ডে রূপান্তর করে পাঠিয়ে দিবে। তবে এসব কাজের জন্য আপনাকে অবশ্যই একটি নিদিষ্ট ফি প্রদান করতে হবে। ক্রেডিন্টশিয়াল পাঠানোর জন্য এ মুহুর্তে সবচেয়ে […]

Read More

আমেরিকান বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদনের সাধারণ ধাপগুলো কি কি?

উচ্চ শিক্ষায় আমেরিকাকে বিবেচনা করা হয় স্বর্গরাজ্য হিসেবে। আবেদনের দরকারি নিয়ম কানুন বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েব সাইটে পাওয়া যায়।  কমবেশি সবগুলো বিশ্ববিদ্যালয়ের আবেদন প্রক্রিয়া কাছাকাছি ধরণের। সে কারনে প্রক্রিয়ার শুরু থেকে শেষ পর্য ন্ত একটি পদ্ধতি অনুসরণ করা উচিত। পছন্দের বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি তালিকা বানানো।  বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েব পেইজ থেকে ডিপার্টমেন্ট এবং সাবজেক্ট বাছাই করা। সাবজেক্টের সাথে মিল আছে এরকম নামগুলো রেখে […]

Read More

বাংলাদেশে বিশ্ববিদ্যালয় পাশ করে আমি কি তাহলে আমেরিকান স্কুলে ভর্তি হতে যাচ্ছি?

এটা একটা মজার প্রশ্ন। আমাদের দেশে স্কুল বলতে ছোট মেয়েদের বিদ্যালয়কে বোঝায়। তবে আমেরিকার ব্যাপারটা একটু অন্য রকম। এখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি ডিপার্টমেন্টকে আলাদাভাবে স্কুল নামে ডাকা হয়। কোথাও আবার কলেজ নামে পরিচিত। অন্যদিকে MS এবং PhD প্রোগ্রামকে গ্রাজুয়েট প্রোগ্রাম নামে ডাকা হয। যে কারনে আপনি যখন বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করবেন তখন প্রফেসর/গ্রাজুয়েট কো-অর্ডিনেটর আপনাকে Hello Kalam, we accepted […]

Read More

জিআরই স্কোর কখন বিশ্ববিদ্যালয়ের হাতে পৌছাবে?

জিআরই স্কোর পরীক্ষা শেষ হওয়ার পরে জানা গেলেও এই স্কোর বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠানোর জন্য কিছুটা সময়ের দরকার হয়। সাধারণত সর্বোচ্চ দুই সপ্তাহের মধ্যে আপনার স্কোর বিশ্ববিদ্যালয়ে চলে যাবে।    

Read More