GRE দেয়ার পর থেকেই সবার বিভিন্ন প্রশ্ন দেখে কিছু দিন ধরে লিখব লিখব ভাবছি, কিন্তু TOEFL এর প্রস্তুতির জন্য সময়ের অভাবে আর আলসামির কারনে লেখা হয়ে উঠে নাই। তবে আগে বলে রাখি এই লেখাটা শুধু আমার নিজের অভিজ্ঞতা থেকে, এবং যারা এই কিছুদিনের মধ্যে এক্সাম দিচ্ছেন তাদের জন্য, (এবং ধরে নিচ্ছি আপনারা GRE কি, তা সম্পর্কে যথেস্ট অবগত) আর যারা শুরু করবেন তাদের জন্য আশা করি পরে লিখব।

প্রস্তুতি পর্বঃ কি বই পড়বেন?

আপনার যা ইচ্ছা। আপনি বিদ্যাসাগর না, বাজারে অন্তত ১৫ থেকে ২০ টা GRE স্পেসিয়ালাইজড বই আছে, সব বই আপনি পড়ে শেষ ও করতে পারবেন না, আর বেশির ভাগ বইয়েই ঘুরেফিরে একই কথা লিখছে।

তবে শুরুটা ETS Official Guide এবং Manhattan 1-8 দিয়ে করা ভাল, বিশেষ করে Manhattan এর ম্যাথ পার্ট টা। আমি যখন শুরু করি তখন আমার প্রতিটা যোগ-বিয়োগ এ ৫ মিনিট লাগত, আর এটা শেষ করার পর নোভা ম্যাথ ভাইবেল ৪ দিনে শেষ করছি। তারপর Quant এর জন্য Math Bible আর 5.LB ই এনাফ, যদি ও আমি 5.LB শেষ ও করতে পারি নাই। Verbal এর জন্য BIG BOOK অনেক ভাল শুনছি, যদি ও আমি পড়ার টাইম পাই নাই। তবে সবচেয়ে ভাল হয় ETS Official Verbal Reasoning প্রাকটিস করতে পারলে। কারন এটাতে তাদের লজিক গুলা বোঝা যায়। আর সব শেষে Princeton-1004। এইতো এইগুলা পড়লেই আমার মতে এনাফ। তবে হ্যা বুঝে পড়া লাগবে, লজিক গুলা ধরা লাগবে। আর না বুঝে পড়লে আরো ১০টা বই পড়ে ও লাভ হবে না।

প্রস্তুতি কত দিন নিব?

আমি ৩ মাস আগে রেজিস্ট্রেশন করে পড়া শুরু করছিলাম, এর আগে আমি GRE এর G ও জানতাম না। এক বন্ধুর বুদ্ধি (বা কুবুদ্ধি) আর নিজের সম্পর্কে আবগত থাকায় জানতাম পিছনে আগুন না লাগলে আমার দ্বারা কিছুই করা সম্ভব না, তাই আগে রেজিস্ট্রেশন পরে পড়া। তবে শেষের দিকে আমার মনে হইছে ৩ মাস অনেক কম ,আপনার হাতে সময় আর বেশি দিন লেগে থাকার মত ধৈর্য থাকলে আপনি যত বেশি ইচ্ছা সময় নিতে পারেন।

শেষ মুহুর্তের পস্তুতিঃ

পরিক্ষার ১৫ দিন আগে মোটামুটি আপনার জানার কাজ শেষ (আই মিন বই পড়া) এখন শুধু নেট প্রাকটিস এর সময়। Power Prep II এর প্রথম টেস্ট আগে দিয়ে দিলে ভাল, না হলে এটা দিয়ে শুরু, তারপর একে একে Manhattan, Kaplan, Princeton and McGraw-Hill, এগুলা AWA সহ ফুল এক্সাম প্রতিদিন আপনার একচুয়াল GRE টাইমে শুরু করে যতটুকু সম্ভব এক্সাম এনভায়রনমেন্ট বজায় রেখে দেয়ার চেষ্টা করবেন। এবং সবচেয়ে বড় কথা দেয়ার পর প্রতিটি (শুদ্ধ ভুল সব) প্রশ্নের উত্তর এবং তার পিছনের কারন ভাল করে দেখবেন। বিশেষ করে টাইমিং আর পেসিং করাটা ভাল করে শিখে নেয়া লাগবে এখান থেকে। এবং সবার শেষে এক্সাম এর দুইদিন আগে Power Prep II এর সেকেন্ড এক্সাম দিবেন। আমি গ্যারান্টি দিয়ে বলতে পারি আপনি সেকেন্ড Power Prep II তে যত পাবেন আপনার একচুয়াল রিসাল্ট বেশি হলে ২ বা ৩ পয়েন্ট কম বেশি হবে।

এক্সামের আগের দিনঃ

চা পানি খান, মুন্নি বদনাম টাইপ গান শুনেন, সকালে চাইলে একটূ ওয়ার্ড দেখতে পারেন। ম্যাথ এর সুত্র এবং কিছু সহজ ম্যাথ প্রাক্টিস ও করতে পারেন। ভুলে ও নতুন কিছু শিখতে বা কঠিন কোন ম্যাথ করতে যাইয়েন না। যা শিখার আপনি অলরেডি শিখে ফেলছেন। আর একটা কথা এর রকম CAT টেস্টে এ আপনার যা যোগ্যতা আপনার রিসাল্ট ও তাই আসবে, সো টেনশন নিয়ে লাভ নাই। বিকালে আসরের নামাজে যান, একটু হেঠে আসেন, আসার সময় দুইটা কলা আর দুইটা কিটক্যাট চকলেট নিয়ে আসবেন যদি না আপনি পরিক্ষার সময় উপবাস করতে ভালবাসেন । সন্ধ্যার পর একটা ব্যাগ এ আপনার পাসপোর্ট, GRE রেজিস্ট্রেশনের কনফার্মেশন পেইজ অথবা ইমেইল এর প্রিন্টেড কপি, একটা পাতলা সোয়েটার (৪ ঘন্টা এসির নিচে বসে থাকলে আপনি যত হট ই হন না কেন, একসময় ঠান্ডায় মাউস ধরতে কষ্ট হবে) এবং কলা আর কিটক্যাট ঢুকিয়ে পড়ার টেবিলে রেখে দেন। তাড়াতাড়ি খাওয়া দাওয়া করে ঘুমানোর চেষ্টা করেন (যদি ও ঘুম আসাটা টাফ :D)

দ্যা ডেঃ

সকালে তাড়াতাড়ি উঠে নামাজ পড়ে, মাথাটারে ওয়ার্কিং কন্ডিশনে নিয়ে আসেন। আমার মত সকালে বেশি পানি খাওয়ার অভ্যাস থাকলে একদিনের জন্য কমাইয়া খান, নতুবা আমার মত AWA শেষে পেটে হাত দিয়ে বসে প্রথম দুই সেকশন দেয়া লাগবে 😀 । সেন্টার কত দূর সে অনুযায়ী হাতে সময় নিয়ে বের হন। রাস্তায় চাইলে গান শুনতে পারেন।

সেন্টারের মানুষজন খুব ই অমায়িক হয়, যদিনা আপনি আমার মত রেজিস্ট্রেশন এর সময় বার্থ ডেট ভুল করেন তাহলে হয়ত দুই চারটা কটু কথা শুনতে হতে পারে। তবে পিসির সামনে একবার বসলে দিন দুনিয়া ভুলে যাওয়া লাগবে। শুরুতেই একটা জোরে শ্বাস নেন, যথক্ষন না আপনি কন্টীনিঊ দিতাছেন ততক্ষন কিছুই হবেনা। শুরুর আগে বার্থ ডেট ভুলের কারনে প্রক্টর এর ঝাড়ি তে আমার মাথা আওলা হয়ে গেছিল আমি প্রায় দুই মিনি্ট বসে সব কিছু ভুলছি, তার পর কম্পিউটার আর কি-বোর্ড নিজের সুবিধা মত যায়গায় নিয়ে মাউসে বিসমিল্লাহ বলে ক্লিক। আমার প্রথমেই ভারবাল আসছিল এবং আমার সবগুলো প্রাকটিস টেস্ট মিলাইয়া হলেও সবচেয়ে বাজে ভারবাল সেট মনে হয় এইটা। এই সেট এ আমি দুইটা ভুল করছিলাম, এক, সেন্টেন্স কমপ্লিশন এর একটার ওয়ার্ড ও জানতাম না, শুধু শুধু সলভ করার চেষ্টা করে টাইম নষ্ট করছি। দুই, ডিম থিউরিতে পরে লং প্যাসেজ পড়ার ও টাইম পাই নাই, ৪টা প্রশ্ন ও আনটাচড। এই সেটে একটা প্যাসেজ আসছিল ডিম এর বয়লিং নিয়া, দেখে মনে হইছিল খুব ই ছোট, খূব ই সোজা, কিন্তু এত বেশি ইনফো আর নাম্বার ছিল যে, প্রতিটা প্রশ্নের প্রতিটা অপশন এর জন্য পূরো প্যাসাজ পড়া লাগছিল তারপর একটার উত্তর ও সঠিক হইছিন বলে মনে হয় নাই, এই প্যাসাজ এর কারনে আমার ভারবাল এর স্কো্র ৪ কম। এইজন্য আমি এটার নাম দিছি ডিম থিউরি।

পুরাপুরি খারাপ এই সেটের পর আমার কান্না পাচ্ছিল, মনে হচ্ছিল এখন ই সেন্টার থেকে বের হয়ে যাই, আবার দেয়ার ও প্লান করে ফেলছি তখন। তখন নিজেরে বুঝালাম, আবার যখন দিবই, যা খারাপ হওয়ার তা তো হইছে, এখন ম্যাথ আসছে, ম্যাথ এ আমারে আটকায় কে? আলহামদুলিল্লাহ ২০ টা ম্যাথ ২৭ মিনিটের মাথায় শেষ করে, বসে বসে রিবাইস দিসি। টিপসঃ ম্যাথ এ ডাটা এনালাইসি, ওয়ার্ড প্রবলেম আর প্যাঁচানো জিওম্যাট্রি (যদিও যত প্যাচ তত সোজা) না দেখেই সরাসরি মার্ক করে সবার শেষে এগুলাতে লাগা উচিৎ, কারন এগুলা আলয়েস টাইম কন্সিউমিং, ম্যাথ তাড়াহুড়ো করে করতে গেলে ভুল হবার সম্ভাবনা বেশি, আর আপনি একটাতে বেশি টাইম নষ্ট করলে তাড়াতাড়ি করতে গিয়ে বাকি সবগুলা তে এফেক্ট পরতে পারে।

তারপর প্রথম ভারবালের ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে পরেরটাতে সেন্টেন্স কমপ্লিশন আর ইকুইব্যালান্স ১০ মিনিটের মাথায় শেষ করে বাকিটা R.C তে দিছি, আর সত্যি বলতে একমাত্র R.C এর বেলায় আমার মনে হইছে যে এগুলা আমি শুদ্ধ দাগাচ্ছি, বিশেষ করে লজিকাল রিসনিং গুলা।

টিপসঃ Sentence Completion and Equivalence এ ওয়ার্ড কমন না পরলে অযথা সময় নষ্ট করবেন না , কারন পরিক্ষার হলে আল্লাহ কাছ থেকে আপনার মাথায় ওহি নাজিল হয়ার কোন চান্স নাই। সো বিসমিল্লাহ বলে একটা দাগাইয়া RC তে যান, অন্তত ২০ মিনিট RC তে ব্যয় করেন, কাজ লাগান সময়টা।

দ্বিতীয় Quant এ, সবগুলা ম্যাথই একটু টাফ আসছে, সময় লাগছে একটু বেশি, এইখানে ৩ টা আমার রাডারের একদম উপর দিয়া ই গেছে, আর এর মধ্যে কোনটা ট্রাই করলে মিলবে এইটা ডিসাইড করতে করতে ৪ মিনিট ও চলে গেছে।

তারপর আরেকটা ভারবাল, আগের মত, খারাপ না।

সবার শেষে কাঁপা কাঁপা হাতে বিসমিল্লাহ বলে রিপোর্ট দিলাম, খুসি হব না দুঃখিত বুঝতে পারি নাই। এক্সাম শেষ হইছে এটাই শুকরিয়া।

তবে হ্যা রুম থেকে বের হয়ে যখন অন্য সবার সাথে কথা বললাম তখন বোঝলাম ৩২০ (Quant 166 আর Varbal 154) খুব একটা খারাপ স্কোর না।

সবার শেষে দুইটা টীপসঃ (দুইটাই ধার করা): “There is no ways to beat GRE rather try to master it”. and in exam hall always Remember Equanimity is the Word”.

Best of luck everyone, everything I written above are mere my personal opinion, so don’t need to follow everything, Sorry for spelling or any other type of mistakes.

Comments

comments