আয়েল্টস টেস্টে পরীক্ষা পদ্ধতি অর্থাৎ পরীক্ষার কাঠামো এবং প্রশ্নের ধরণ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পড়তে পারেন IELTS পরীক্ষার জন্য রেজিস্ট্রেশন করবেন যেভাবে আর্টিকেলটি থেকে। আর আয়েল্টস পরীক্ষার রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতি সম্পর্কে আদ্যোপান্ত জানতে পড়ুন ‘IELTS পরীক্ষার জন্য রেজিস্ট্রেশন করবেন যেভাবে’ শিরোনামের আর্টিকেলটি।

আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত ইংরেজি ভাষায় দক্ষতার সনদ আয়েল্টস টেস্টে বর্তমানে বাংলাদেশের অনেক শিক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। হায়ার গ্র্যাজুয়েশন কিংবা আন্ডারগ্র্যাডের জন্য ইংরেজি ভাষাভাষি দেশের কোন ইউনির্ভাসিটি বা কলেজে পড়তে প্রয়োজন হয় এই টেস্টের ব্যান্ড স্কোর । এছাড়াও যাদের মাতৃভাষা ইংরেজি নয় তাদের বিদেশে ভিসার আবেদন করতে আয়েল্টস স্কোর থাকতে হয়।

তবে আমাদের দেশে আয়েল্টস নিয়ে তেমন কোন তথ্য সাধারণ একজন শিক্ষার্থীর পক্ষে পাওয়া খুবই মুশকিল। আয়েল্টস টেস্ট দিবেন বলে মনস্থির করলেও জানা যায় না এই পরীক্ষা কবে, কখন, কোথায় হবে? আর কত টাকাই বা খরচ পড়বে? এর কাছে ওর কাছে ধরণা দিয়ে, যে তথ্য মিলে তাও অসম্পূর্ণ।

উচ্চশিক্ষার জন্য বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পড়াশোনা করতে যাওয়ার স্বপ্ন দেখা শিক্ষার্থীর সংখ্যা আমাদের এই ছোট্ট দেশে ক্রমান্বয়ে বাড়ছেই। সেই সাথে বাড়ছে আয়েল্টস পরীক্ষায় অবতীর্ণ হতে আগ্রহী শিক্ষার্থীদের মধ্যে না খুঁটিনাটি প্রশ্ন। সাধারণ অনেক শিক্ষার্থীর মনেই প্রশ্ন থাকে আয়েল্টস (IELTS) পরীক্ষা কখন দেয়া যায়, পরীক্ষায় দিতে খরচ কেমন পড়ে এবং কোথায় কোথায় পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়?

question

চলুন এক এক করে এই প্রশ্নগুলোর উত্তর জেনে নেই:

আয়েল্টস পরীক্ষায় অংশগ্রহণে খরচাপাতি কত?

ইংরেজি ভাষাগত দক্ষতা যাচাইয়ের পরীক্ষা আয়েল্টস টেস্টে অংশগ্রহণে একজন পরীক্ষার্থীকে রেগুলার আয়েল্টস পরীক্ষার জন্য বাংলাদেশী টাকায় ১৫ হাজার ২০০ টাকা ব্যয় করতে হবে। আর UKVI IELTS Exam এর জন্য পরীক্ষার্থীর ব্যয় করতে হবে ২২ হাজার নয়শ ৩০ টাকা।

ielts-costআর বাড়িতে বসেই অনলাইনে আয়েল্টস পরীক্ষার রেজিস্ট্রেশন ফরম পূরণ করে টাকা জমা দিতে পারেন দেশের বেসরকারি ব্যাংক প্রতিষ্ঠান স্ট্যান্ডার্ড চার্টাড ব্যাংকের নির্দিষ্ট কিছু শাখায় কিংবা আয়েল্টস রেজিস্ট্রেশন সেন্টারে।

ব্রিটিশ কাউন্সিলের ওয়েবসাইটে দেখে নিতে পারবেন কোন কোন শাখায় টাকা দেওয়া যাবে। এসএমএসের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে আপনার পরীক্ষার সময়, স্থান, নিবন্ধন নম্বর ইত্যাদি তথ্য। অনলাইনে পূরণ করা ফরমের প্রিন্ট কপি ও ব্যাংকে টাকা জমা দেওয়ার স্লিপ সংগ্রহে রাখুন, এগুলো পরে কাজে লাগতে পারে।

আয়েল্টস পরীক্ষা কখন অনুষ্ঠিত হয়?

IELTS-Test-datesআয়েল্টস পরীক্ষা পুরো বছর জুঁড়েই দেয়া যায়। সারা বছরে অন্তত ৪৮টি পরীক্ষার দিন নির্দিষ্ট করা থাকে। দেশের বিভিন্ন ভেন্যুতে প্রতি মাসে অন্তত ৩ থেকে ৪টি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। অর্থাৎ আয়েল্টস পরীক্ষা দিতে দীর্ঘ কোন সময়ের জন্য অপেক্ষা করতে হয় না। আপনি পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি নিন এবং সম্পন্ন হলে বাড়িতে বসেই আয়েল্টস পরীক্ষার রেজিস্ট্রেশন লিংক থেকে পছন্দের তারিখ সিলেক্ট করে রেজিস্ট্রেশন করে ফেলুন ব্যাস!

আয়েল্টস পরীক্ষা রেজিস্ট্রেশন করতে ক্লিক করুন এখানে। আর আয়েল্টস পরীক্ষার রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতি সম্পর্কে আদ্যোপান্ত জানতে পড়ুন ‘IELTS পরীক্ষার জন্য রেজিস্ট্রেশন করবেন যেভাবে’ শিরোনামের আর্টিকেলটি।

এছাড়াও আপনি আয়েল্টস রেজিস্ট্রেশন লিংক থেকেও আগাম পরীক্ষার তারিখ এবং কোন দিন কোন ভেন্যুতে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে সেটাও আগেই দেখে নিয়ে তারপর রেজিস্ট্রেশনের কাজে হাত দিতে পারেন।

দুই সপ্তাহের মধ্যে পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়। পরীক্ষা দেওয়ার জন্য সাম্প্রতিক সময়ের পাসপোর্ট ও দুই কপি পাসপোর্ট আকারের রঙিন ছবি লাগবে। আইইএলটিএস স্কোরের মেয়াদ থাকে দুই বছর।

বাংলাদেশে আয়েল্টস পরীক্ষার ভেন্যু কোথায়?

map-localবাংলাদেশে ব্রিটিশ কাউন্সিল এবং আইডিপির আয়োজনে আয়েল্টস পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। আপনি রেজিস্ট্রেশনের প্রথম ভাগেই আপনার কাছের পরীক্ষা কেন্দ্র সিলেক্ট করতে পারেন।

সারাদেশে মোট ৫টি বিভাগের বেশ কয়েকটি স্থানে এখন আয়েল্টস পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এই বিভাগগুলো হচ্ছে ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, রাজশাহী এবং খুলনা। এর মধ্যে থেকে আপনার কাছের যেকোন একটি লোকেশন সিলেক্ট করে রেজিস্ট্রেশনের পরবর্তী ধাপে অগ্রসর হলেই আপনি সেই লোকেশনে তারিখ অনুযায়ী বেশ কয়েকটি পরীক্ষা কেন্দ্র পাবেন। আপনি সেখান থেকে যে কেন্দ্রটি আপনি পছন্দ সেটি সিলেক্ট করতে পারেন।

আয়েল্টস পরীক্ষার ভেন্যু সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পড়ুন এই আর্টিকেলটি

রেজিস্ট্রেশনের ২-৪ দিনের মধ্যেই কিংবা পরীক্ষার জন্য নির্দিষ্ট তারিখের কিছুদিন আগেই আপনার স্পিকিং টেস্ট নেয়া হতে পারে। তবে লিসেনিং, রিডিং এবং রাইটিং টেস্ট পরীক্ষার নির্দিষ্ট দিনেই অনুষ্ঠিত হবে।

রেজিস্ট্রেশনের পরবর্তী আনুমানিক ৪ দিনের মধ্যেই আপনাকে মোবাইল ফোনে ম্যাসেজের মাধ্যমে এবং ইমেইল করে পরীক্ষার সময়, স্থান, নিবন্ধন নম্বর ইত্যাদি তথ্য জানিয়ে দেয়া হবে।

Comments

comments