ইউনিভার্সিটিতে আবেদনের জন্য যে কয়টি অবশ্যই দরকারি জিনিস আছে তার মধ্যে ‘লেটার অব রেকমেন্ডেশন বা LOR’ একটি। যারা  LOR সম্পর্কে একেবারেই নতুন তারা [button size=”large,small,mini” color=”purple” url=”http://hsa.grecbd.com/whatislor/” ]লেটার অব রেকমেন্ডেশন বা ভর্তির সুপারিশ পত্র কী[/button] সম্পর্কিত আর্টিকেলটি আগে পড়ে নিতে পারেন।

যার কাছ থেকে সংগ্রহ করবেন:

সাধারণত তিন ধরণের ব্যক্তির কাছ থেকে রেকমেন্ডেশন (LOR) লেটার সংগ্রহ করা যায়। যেমন-

  • আপনার প্রজেক্ট সুপারভাইজার, যার অধীনে আপনি অনার্সের থিসিস বা কোন প্রজেক্ট করেছেন। অথবা পাবলিকেশনের উপযোগী গবেষণা প্রকল্পতে কাজের অভিজ্ঞতা থাকলে ওই প্রকল্পের প্রধান হিসাবে যিনি ছিলেন।
  • আপনার ডিপার্টমেন্টের চেয়ারম্যান, যার আন্তর্জাতিক পরিচিতি আছে।
  • আপনার ডিপার্টমেন্ট অথবা ফ্যাকাল্টির মধ্যে সব চেয়ে প্রভাবশালী ও আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃতিপ্রাপ্ত গবেষক অধ্যাপক।

যেভাবে সংগ্রহ করবেন:

  • অধিকাংশ ক্ষেত্রেই দেখা যায় স্টুডেন্ট নিজে একটি ড্রাফট তৈরী করে নিয়ে প্রথমে শিক্ষককে দেখান এবং তিনি কিছু পরিবর্তন আনলে সেই অনুযায়ী একটি লেটার তৈরী করে তারপর চূড়ান্ত অনুমোদন নিয়ে অনেকগুলো কপি করিয়ে তার সবগুলোতে ওই শিক্ষকের স্বাক্ষর নিয়ে ফাইনালাইজ করা হয়। লেটার অব রেকমেন্ডেশন হতে হবে লেটারহেড প্যাড-এ (Letter-Head Pad)। এর মানে হলো কাগজের উপরের অংশটায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম, ঠিকানা, লোগো ইত্যাদি থাকবে। আর এক পাশে থাকবে সংশ্লিষ্ট শিক্ষকের নাম, ফোন নম্বর, ইমেইল ইত্যাদি।