উচ্চ শিক্ষা অর্জনে যতগুলো ধাপ আছে তার মধ্যে অন্যতম জিআরই পরীক্ষা। তবে ব্যস্ততার কারনে অনেকেই আশানুরূপ ফলাফল অর্জনে ব্যর্থ হন। এ অবস্থায় নতুন করে পুনরায় জিআরই পরীক্ষা দেওয়ার চিন্তা শুরু করেন। অনেকের মনেই তখন যে প্রশ্ন হাজির হয় তার মধ্যে অন্যতম জিআরই পরীক্ষা কত বার দেওয়া যায়? কত দিন পর পর দেওয়া যায়? – যদিও আপাত দৃষ্টিতে দুইটি প্রশ্ন একই ধরণের মনে হচ্ছে তবে এরা আলাদা তাৎপর্য বহন করে। তাই দুইটি প্রশ্নের উত্তর আলাদাভাবে আলোচনা করা হলো:

প্রশ্ন-১: জিআরই পরীক্ষা কত বার দেওয়া যায়?

উত্তর: জিআরই পরীক্ষা দেওয়ার কোনো সীমারেখা নেই। একজন স্টুডেন্ট যতবার ইচ্ছা জিআরই পরীক্ষা দিতে পারবে। তবে তার জন্য শর্ত প্রয়োজ্য আছে। যেমন- একজন স্টুডেন্ট এক বছরে সর্বোচ্চ পাঁচবার পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবে। উদাহরন হিসেবে বলা যায়, রহিম মিয়া ২০১৪ সালে জিআরই পরীক্ষা দিলো। আশানুরূপ স্কোর না আসায় চাইলে ২০১৪ সালেই আরো চারবার জিআরই পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবে। ২০১৪ চারবার অংশ নেওয়ার পরও যদি রহিম মিয়া কাঙ্খিত স্কোর না পায় তাহলে চাইলে পরববর্তী বছর অর্থাৎ ২০১৫ সালে আরো পাঁচবার পরীক্ষা দিতে পারবে। এভাবে যত বছর ইচ্ছা সর্বোচ্চ পাঁচবার করে পরীক্ষা দিতে পারবে।

সহজভাবে বুঝানোর জন্য তালিকায় দেখানো হলো:

প্রশ্ন-২: জিআরই পরীক্ষা কতোদিন পর আবার দেওয়া যায়?

উত্তর: জিআরই পরীক্ষা ২১ দিন পর পর দেওয়া যাবে। যেমন- আপনি যদি জানুয়ারী মাসের ৩১ তারিখে পরীক্ষা দিয়ে থাকেন, তাহলে আপনি চাইলে  ফ্রেবুয়ারী মাসের ২১ তারিখে আবার পরীক্ষায় বসতে পারবেন।

উদাহরন হিসেবে নিচের টেবিলে নমুনা তারিখ দেখানো হলো:  Screenshot_2

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *